লিড নিউজ

খালেদার জন্ম ভানুমতির খেল!

কোর্ট রিপোর্টার : খালেদা জিয়ার জন্ম যেন ভানুমতির খেল! ফলে মূল জন্ম তারিখ নির্ধারণ করতে এবার হাইকোর্টে হলো রিট মামলা। হাইকোর্টে জমা দেওয়া বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ৫টি নথিতে ৩টি জন্মদিন পাওয়া গেছে। তারিখগুলো হলো, ১৯৪৬ সালের ৮ মে, ১৫ আগস্ট ও ৫ সেপ্টেম্বর। এ নিয়ে আগামীকাল বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) শুনানির দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালনের বিষয়ে পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের নথি হাইকোর্টে দাখিল করা হয়েছে। নথিগুলোর মধ্যে রয়েছে: খালেদা জিয়ার এসএসসি পরীক্ষার সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র, বৈবাহিক সনদ, পাসপোর্ট ও এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি ফর্মে উল্লিখিত জন্ম তারিখ সংক্রান্ত নথি।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের দ্বৈত বেঞ্চে মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) এসব নথি দাখিল করা হয়েছে। আগামীকাল বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) এ বিষয়ে শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার। আদালতে রিটকারী পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথী। ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও টাঙ্গাইল জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মামুন অর রশিদ।

রিটে বলা হয়, খালেদা জিয়ার একাধিক জন্মদিন রয়েছে। একেক জায়গায় একেক রকম তথ্য দেওয়ায় এটা জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। ওই রিটের প্রেক্ষিতে গত ১৩ জুন হাইকোর্ট খালেদা জিয়ার জন্মদিন সংক্রান্ত নথি তলব করে। ওই তলব আদেশের পর বিবাদীরা জন্মদিন সংক্রান্ত নথি আদালতে দাখিল করেছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button