খেলা

বসুন্ধরা এমডি আনভীর গলফ’কে এগিয়ে নিচ্ছেন

স্পোর্টস রিপোর্টার : বসুন্ধরা গ্রুপ এমডি সায়েম সোবহান আনভীর করপোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি থেকে সমাজকল্যাণ খেলাধূলায় ভূমিকা রেখে গলফ কে এগিয়ে নিচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি, এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. সাইফুল আবেদিন। শনিবার বেলা ২টায় ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবে (বিজিসিসি) বসুন্ধরা কাপ গলফ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। জিওসি বলেন, বসুন্ধরা কাপ গলফ টুর্নামেন্ট আমাদের চতুর্থ টুর্নামেন্ট। করোনার স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা এ টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছি। বসুন্ধরা গ্রুপ সবচেয়ে বড় করপোরেট হাউস। বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মি. আনভীর আগামীতেও গলফে পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এ ঘোষণাকে আমরা স্বাগত জানাই। তিনি বলেন, গলফ সহজ গেম, কিন্তু খেলা কঠিন। আমি সব বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারীদের অভিনন্দন জানাই। স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমাদের গলফ খেলতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর বলেন, ‌‘খেলাধুলা নীতি, তারুণ্য ও শক্তির প্রতীক। আমাদের ডায়নামিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় খেলাধুলাকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে থাকেন। বসুন্ধরা গ্রুপ শুধু শিল্প বা রিয়েল এস্টেট কোম্পানি নয়, ক্রীড়া ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র, শেখ জামাল, বসুন্ধরা কিংস পরিচালনা করছে বসুন্ধরা গ্রুপ। বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করছি গলফের প্রয়োজনে আমরা সবসময় পাশে থাকব।পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে কর্নেল মামুনুর রশীদ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন। ১৮০ জন গলফার টুর্নামেন্টে অংশ নেন।

‘প্লে গলফ, লাইভ লং’ স্লোগানে শুক্রবার সকালে টুর্নামেন্ট শুরু হয়। শনিবার সকাল ৯টায় বেলুন উড়িয়ে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর ঘাঁটি জহুরুল হকের এয়ার অফিসার কমান্ডিং ও শাহীন গলফ ক্লাবের প্রেসিডেন্ট এয়ার ভাইস মার্শাল মো. জাহিদুর রহমান।এ সময় উপস্থিত ছিলেন নৌবাহিনীর চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল এম মোজাম্মেল হক, টুর্নামেন্ট চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিন, বিজিসিসির সিইও লে. কর্নেল (অব.) মো. তৌফিকুল ইসলাম, বসুন্ধরা গ্রুপের পাবলিক রিলেশন ডিপার্টমেন্টের ডিজিএম স্কোয়াড্রন লিডার (অব.) গোলাম মোস্তফা, ম্যানেজার নৌবাহিনীর লে. (অব.) আবদুল মান্নান, বসুন্ধরা গ্রুপের এজিএম (ব্রান্ড, সেক্টর বি) সাইফুল ইসলাম রুবেল প্রমুখ।কোরআন তেলাওয়াত ও মোনাজাত করেন মাওলানা শাহ আলম।

১৮ হুইল উইনার, নাইন হুইল উইনার, লেডিস উইনার, জুনিয়র উইনার, বেস্ট গ্রস, সেকেন্ড বেস্ট গ্রস, লেডিস বেস্ট গ্রস, জুনিয়র উইনার, লংগেস্ট ড্রাইভ, বেস্ট পার ৫ এস, বেস্ট পার ৩ এস, নিয়ারেস্ট টু পিন, বেস্ট ব্যাক নাইন, বেস্ট ফ্রন্ট নাইন, প্রথম ও সেকেন্ড রানার আপের ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিরা।মিনহাজ মো. শাকিল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন ও মেজর মো. ফারুকুজ্জামান ফকির রানার আপ হয়েছেন।

 

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button