আন্তর্জাতিক

ইমরানের গুগলিতে অস্থির পাকিস্তান

সংসদ ভেঙ্গে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি

 

কূটনৈতিক রিপোর্টার : আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বাইডেনের চালে নাকাল হওয়া পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গুগলি মেরে ফের ক্ষমতায় যাওয়ার চেষ্ঠা চালাচ্ছেন। এর অংশ হিসেবে তিনি সংসদ ভেঙে দেয়ার অনুরোধ করেন রাষ্ট্রপতিকে। একই সঙ্গে নতুন করে ৯০ দিনের মধ্যে ভোট প্রদানের অনুরোধ করেন। প্রধানমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দিয়ে প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি আজ রবিবার সংসদ ভেঙ্গে দিয়েছেন।

এর আগে রোববার জাতির উদ্দেশ্যে এক ভাষণে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানান, তিনি রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভিকে সংসদ ভেঙে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই এ ঘোষণা আসে। জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংসদ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী ইমরানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দেওয়া হয়। বিষয়টিকে ডেপুটি স্পিকার সুরি, সংবিধানের ৫ নং অনুচ্ছেদের বিরোধী বলে অভিহিত করেন।

রোববার পাকিস্তানের পার্লামেন্টে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবে ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল। তবে এর আগেই পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের স্পিকার আসাদ কায়সারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে সরকারবিরোধী দলগুলো। আর এ কারণে আজকের অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরি।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য ডন বলছে, অধিবেশন শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, সংবিধানের ৫ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী দেশের প্রতি আনুগত্য প্রত্যেক নাগরিকের মৌলিক কর্তব্য। তিনি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের করা আগের দাবিগুলোর কথা পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার পদক্ষেপের পেছনে বিদেশি ষড়যন্ত্র ছিল।বক্তব্যে পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘গত ৭ মার্চ আমাদের সরকারি রাষ্ট্রদূতকে একটি বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল যেখানে অন্যান্য দেশের প্রতিনিধিরাও অংশ নিয়েছিলেন। বৈঠকে জানানো হয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী ইমরানের বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব পেশ করা হচ্ছে।তিনি বলেন, ইমরান খানের বিরুদ্ধে বিরোধীরা আনুষ্ঠানিকভাবে অনাস্থা প্রস্তাব আনার একদিন আগেই এই ঘটনা ঘটেছিল।

অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ হওয়ায় জাতিকে অভিনন্দন জানিয়ে ইমরান বলেন, শাসন পরিবর্তনের প্রচেষ্টা (এবং) বিদেশি ষড়যন্ত্রকে ডেপুটি স্পিকার প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি আরও জানান, উদ্বিগ্ন অনেকেই তাকে মেসেজ দিয়েছেন। জাতির সামনে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ করা হচ্ছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। সেইসঙ্গে তিনি বলেন, আমি বলতে চাই, আপনারা চিন্তা করবেন না; পাকিস্তানের পরিস্থিতি আল্লাহ দেখছেন।

ভাষণে তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতিকে সংসদ ভেঙে দেওয়ার লিখিত পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তার মতে, গণতন্ত্রে বিশ্বাসীদের জনগণের কাছে যেতে হবে এবং এরপর নির্বাচন হওয়া উচিত, যেনো জনগণ সিদ্ধান্ত নিতে পারে তারা কাকে ক্ষমতায় চায়।
আইন প্রণেতাদের ভোট ‘কিনতে’ যেই ‘কোটি কোটি টাকা’ ব্যয় করেছেন বিরোধীরা, তা সম্পূর্ণই বৃথা যাবে বলে উল্লখে করেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান। সেইসঙ্গে, যারা টাকা নিয়েছেন তাদেরকে সেই টাকা এতিমখানা ও দরিদ্রদের মাঝে দান করে দেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

তিনি বলেন, নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন। দেশের ভবিষ্যৎ কী হবে তা কোনো দুর্নীতিবাজ শক্তি নির্ধারণ করবে না। সংসদ ভেঙে দেওয়া হলে পরবর্তী নির্বাচন ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রক্রিয়া শুরু হবে। এর কিছুক্ষণ পরেই, তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী জানান, সংবিধানের ৫৮ নং অনুচ্ছেদের অধীনে জাতীয় পরিষদ (সংসদ) ভেঙে দেওয়ার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর লিখিত পরামর্শ রাষ্ট্রপতি ড. আরিফ আলভির কাছে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ইমরান খানের গুগলির তোপে শনিবার লন্ডনে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের ওপর হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।পাকিস্তানের এক সাংবাদিক টুইটারে এই দাবি করেছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় বার্তাসংস্থ এএনআই।এএনআই বলছে, লন্ডনের রাস্তায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নোয়াজ শরিফের ওপর চড়াও হয় পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) এক সমর্থক। ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন এই দলটিই এখন পাকিস্তানের ক্ষমতায় রয়েছে। হামলায় নওয়াজ শরীফ বিশেষ চোট না পেলেও, তার দেহরক্ষী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।
এএনআই জানিয়েছে, আহমেদ নুরানী নামে এক সাংবাদিক পাকিস্তানের ফ্যাক্ট ফোকাস সংবাদমাধ্যমে কাজ করেন। শনিবার টুইটারে তিনি দাবি করেন, লন্ডনের একটি রেস্তোরাঁর সামনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের ওপরে হামলা চালায় পিটিআই’র এক সমর্থক।

 

 

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button