খেলা

দুই বন্ধুর লড়াইয়ে জয় পেল রূপগঞ্জ


স্পোর্টস ডেস্ক : ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে বিকেএসপিতে চলতি মৌসুমে প্রথমবারের মতো মাঠে নামলেন দুই বন্ধু সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। সাকিব লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে খেললেও তামিম খেলছেন প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবে। দুই বন্ধুর লড়াইয়ে জিতেছে মাশরাফির নেতৃত্বাধীন লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। শেষ ওভারের শ্বাসরূদ্ধকর ম্যাচে ২ বল বাকি থাকতে ৩ উইকেটে প্রাইম ব্যাংককে হারিয়েছে রূপগঞ্জ। এদিন ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সেও তামিমের চেয়ে এগিয়ে ছিলেন সাকিব। বিকেএসপিতের তিন নম্বর মাঠে বৃষ্টিবিঘিœত ম্যাচে আগে ব্যাট করে ৩১.২ ওভারে ১৫২ রান করে প্রাইম ব্যাংক। জবাবে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে রূপগঞ্জও। ২৬ রানে পড়েছে ৩ উইকেট। শুরুর বিপদ থেকে দলকে উদ্ধারের চেষ্টা করেছেন সাব্বির রহমান ও সাকিব আল হাসান। সাব্বির ২৭ বলে ২৬ রান করে আউট হলেও দারুণ ভাবে খেলছিলেন সাকিব। কিন্তু মুক্তার আলীর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে ৩৪ বলে ২১ রান করে আউট হতে হয় বামহাতি অলরাউন্ডারকে। সবমিলিয়ে ৮৪ রানে ৭ উইকেট হারানো রূপগঞ্জকে একসময় হারই চোখ রাঙাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত অষ্টম উইকেটে মুক্তার আলী ও তানভীর হায়দারের অবিচ্ছিন্ন ৭০ রানের জুটি রূপগঞ্জকে অসম্ভব এক জয় এনে দিয়েছে। মুক্তার ৪৫ বলে ৩৯ এবং তানভীর ৩৯ বলে ৩১ রান করে অপরাজিত ছিলেন। প্রাইম ব্যাংকের বোলারদের মধ্যে রাকিবুল হাসান ২৬ রানে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট নিয়েছেন। আর মেহেদী, নাসির, রাজা প্রত্যেকে নেন একটি করে উইকেট। শুরুতে টস হেরে মৌসুমে প্রথমবারের মতো প্রাইম ব্যাংকের জার্সিতে নেমেছিলেন তামিম ইকবাল। বেশি সুবিধা করতে পারেননি। বন্ধু সাকিবের বলে আউট হয়েছেন ৮ রানে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো প্রাইম ব্যাংকের রানের চাকা সচল রাখেন লিগে দারুণ ছন্দে থাকা এনামুল। তার ৭৩ রানের ইনিংসের ওপর ভর করে ৩১.২ ওভারে ১৫২ রান করতে পারে প্রাইম ব্যাংক। এনামুল ৯১ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় নিজের ইনিংসটি সাজিয়েছেন। এনামুল ছাড়া মাত্র দুই ব্যাটার দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পেরেছেন। তারা হচ্ছেন- ইয়াসির আলী চৌধুরী (৩৯) ও মুমিনুল হক (১৩)। প্রায় এক মাস পর খেলায় ফিরলেও সাকিবের বোলিংয়ে ধার কম ছিল না। বল হাতে ২৯ রান খরচায় নেন দুটি উইকেট। চেরাগ জানি ও মাশরাফি বিন মুর্তজাও নিয়েছেন দুটি।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button