আন্তর্জাতিক

শ্রীলঙ্কার সহায়তায় বিশ্বব্যাংক-আইএমএফ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আর্থিক সঙ্কটে ধুঁকতে থাকা শ্রীলঙ্কাকে সাহায্য করতে সম্মত হয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) ও বিশ্বব্যাংক। আইএমএফ জানিয়েছে, শ্রীলঙ্কার ঋণ আবেদনের বিষয়ে একটি ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। বিশ্বব্যাংক বলেছে, তারা শ্রীলঙ্কার জন্য একটি জরুরি সাহায্য প্যাকেজ তৈরির কাজ শুরু করেছে। গত রোববার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা জানিয়েছে রয়টার্স। দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কায় দুই কোটি ২০ লাখ মানুষের বাস। বর্তমানে এই দেশটিতে ভয়াবহ বৈদেশিক মুদ্রার সঙ্কট দেখা দিয়েছে। ফলে বিদেশ থেকে আমদানি করা পণ্যের মূল্য পরিশোধ করতে পারছে না সেখানকার সরকার। এতে করে মূল্যস্ফীতি বেড়েই চলেছে। এ ছাড়া অর্থের কারণে বিদ্যুৎ, খাদ্য, জ¦ালানি ও ওষুধের তীব্র সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে সেখানে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সরকার বিরোধী আন্দোলন চলছে। আন্দোলন এতোটাই তীব্র আকার ধারণ করে যে বাধ্য হয়ে দেশটির সরকারের ২৬ মন্ত্রী একসঙ্গে পদত্যাগে বাধ্য হন। শ্রীলঙ্কার নতুন অর্থমন্ত্রী আলী সাবরি চলতি সপ্তাহে ঋণের আবেদন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন সফর করছেন। সেখানে তিনি আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক, ভারতসহ সহযোগী দেশগুলোর সঙ্গে কথা বলছেন। বিশ্বব্যাংকের এক মুখপাত্র জানান, জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলায় শ্রীলঙ্কাকে জরুরি ওষুধ কেনার জন্য ১০ মিলিয়ন ডলার সাহায্য দেওয়া হয়েছে।। করোনা মহামারির প্রস্তুতি বিষয়ক স্বাস্থ্য প্রকল্প থেকে দ্বীপ রাষ্ট্রটিকে এ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়েছে। আইএমএফ শ্রীলঙ্কাকে কী পরিমাণ সহায়তা দিচ্ছে তা এখনো জানা জায়নি। তবে শ্রীলঙ্কার অর্থমন্ত্রী বলেছেন, সংস্থাটি ৫০০ মিলিয়ন ডলার সাহায্যের বিষয়টি বিবেচনা করছে। বিশ্বব্যাংকের মুখপাত্র বলেন, শ্রীলঙ্কাকে যে অর্থ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে তা ব্যাংকের অর্থায়নে পরিচালিত বিভিন্ন প্রকল্প, দ্রæত তহবিল স্থানান্তর করে জরুরি ওষুধ ক্রয়, স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা এবং দরিদ্র পরিবারগুলোর কাছে নগদ অর্থসহায়তা পাঠানোর ক্ষেত্রে ব্যয় করতে হবে শ্রীলঙ্কা সরকারকে। তিনি আরো বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার, ধান ও সার কেনা এবং অন্য নিত্যপণ্যের জন্য আর্থিক সহায়তা প্যাকেজ নিয়ে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে তাঁদের প্রতিনিধিদের আলোচনা চলছে। সূত্র: রয়টার্স

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button