রাজনীতি

সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে হাঁটেন-প্রধানমন্ত্রী কে জাফরুল্লাহ

 

স্টাফ রিপোর্টার : চালাকি ছাড়েন, কারচুপি ছেড়ে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে হাঁটতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। অন্যথায় দেশের অবস্থা শ্রীলঙ্কার মতো হবে বলে হুশিয়ারি জানিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার (১০ মে) রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের আব্দুস সালাম হলে বাংলাদেশ তরিকতে ইসলাম ঐক্যজোট আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ তরিকতে ইসলাম ঐক্যজোট এবং পীর মাশায়েখ ঐক্য পরিষদের সমন্বয়ক, শাহ সুফি শামসুল আলম চিশ্তীর সভাপতিত্বে এই প্রতিবাদ সভায়,প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। প্রধান আলোচক, আশিক্কীনে আউলিয়া ঐক্য পরিষদের মহাসচিব, নুরে হক দরবার শরীফের পীর শাহসূফি আল্লামা হানিফ নূরী, সমন্বয়ক, বাংলাদেশ তরিকতে ইসলাম ঐক্যজোট, এবি পার্টির সদস্য সচিব, জননেতা মজিবুর রহমান মঞ্জু, বাউল গায়ক আরিফ দেওয়ান, সৈয়দা জাহিদা সুলতানা রতনাজীসহ
প্রমূখ।

ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আজকে বাংলাদেশের অবস্থা খুব খারাপ। আজকের পত্রিকায় এসেছে দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য্য বলেছেন, পঁচিশ সাল থেকে ঠেলা সামলাতে পারবেন না। দেখেন শান্তির দ্বীপ ছিল শ্রীলংকা। শিক্ষিত মানুষ, শান্তির দেশ কি হয়েছে। আগুন জ্বলছে, গণহারে দারিদ্র্য বাড়ছে। আমরা সেদিকে যাব না তো?’ আমাদের সবার উচিত আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাওয়া উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের উচিত আল্লাহকে বলা আমাকে সঠিক পথ দেখাও আমার
প্রধানমন্ত্রীকে হেদায়েত করো ওনাকে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে আন।

চালাকি ছাড়েন, কারচুপি বন্ধ করে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে হাঁটেন। যে আসে আসবে আর তা না হলে শ্রীলংকার মতো অবস্থা হবে। সেখানে যা ঘটছে তেমন কাহিনী এখানেও সৃষ্টি হতে পারে। সুতরাং সাবধান, সাবধান।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতীয়দের দ্বারা আবৃত হয়ে আছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার স্নেহের প্রধানমন্ত্রী আপনি ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন খুব ভালো কথা, নামাজ পড়েন দেশের জন্য দোয়া করেন কিন্তু আপনি ভারতীয়দের ধারা আবৃত হয়ে আছেন। তারা আপনাকে ভুল পথে নিয়ে যাবে এবং নিয়ে যাচ্ছে।’

গান গাওয়াকে কেন্দ্র করে সুফিবাদী গায়ক সৈয়দ গোলাম মইনুদ্দিন টিপুকে থানায় ডেকে মারধোর ও গ্রেপ্তারের নিন্দা জানিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘ইসলাম গুন্ডামি করার অবকাশ দেয় নাই। ফারুককে দারোগা গিরি করার দেয়া হয়েছে গুন্ডামির সরদার করতে নয়। কে কি করেছে এটার বিচার করবেন আল্লাহ। আমি আপনি না। আমি আপনি কেবল শুনবো, যুক্তিতর্ক দিব।’ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, কোরআন পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ কবিতার বই। কোরআনকে বহুবার নোবেল প্রাইজটা দেওয়া উচিত ছিল। আজকে আমাদের দুর্ভাগ্য মুসলমানরা নিজেদের নিজেদের ভালো কিছু করতে চাই না। ইসলাম যুক্তি তর্কের ধর্ম। তিনি দেশের সব স্কুল-কলেজে আরবি পড়ানো উচিত বলে অভিমত দিয়েছেন। ভালো মুসলমান হওয়া মানেই সবার মঙ্গল। আল্লাহ আমাদের প্রতি সহায়ক হোন। বর্তমান বাংলাদেশের অবস্থা খুব খারাপ।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button