জাতীয়

ঈদে ২০ হাজার দরিদ্র’কে খাদ্য-মাংস সহায়তার উদ্যোগ ডা. জাফরুল্লাহ’র

বিত্তবান প্রবাসী বিকাশধারীদেরও সহায়তার আহবান

 

স্টাফ রিপোর্টার : কোরবানি ঈদে ২০ হাজার দরিদ্র পরিবারকে খাদ্য ও মাংস প্রদানের জন্য বিত্তবানদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘নিত্যপণ্যের উধ্বগতির কারণে এবার দেশের দরিদ্র মানুষ কোরবানি ঈদে কোন ধরনের আনন্দ করতে পারবেন না। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য, দরিদ্র ও অসহায় মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাহিরে চলে যাওয়ায় ঈদের দিন এসব মানুষের চোখে থাকবে পানি।

প্রায় তিন কোটি পরিবার এবার ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত হবে। আমারা উদ্যোগ নিলে হয়তো তিন কোটি মানুষকে খাবার দিতে পারবো না কিন্তু কয়েক লাখ মানুষকে খাদ্য সহয়তা দেওয়া যাবে তাই আমরা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পক্ষ থেকে প্রায় ২০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহয়তা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছি। আমাদের উদ্যোগ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্মীরা যাদের বেতন ২০ হাজার টাকার উপরে তাদের এক মাসের বেতন থেকে নুন্যতম শতকরা ৫ টাকা করে দান করে দিয়েছেন। এতে ৫০ লাখ টাকার যোগান হয়েছে। কিন্তু ২০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহয়তা দিতে দরকার আরো দেড় কোটি টাকা।

দেশের বিত্তবান ও ব্যবসায়ীসহ বিকাশ একাউন্টধারী ও সচ্ছল প্রবাসীদের কাছে সাহায্যের আবেদন করেন তিনি। তিনি আরো বলেন, সারাদেশ থেকে এ বছর ৫৩ হাজার মানুষ হজে যাচ্ছেন। তাঁরা যদি ১০ হাজার টাকা করে দান করেন তাহলে ৬ লাখ পরিবার ঈদের কয়েকটা দিন ভালভাবে পেট ভরে খেয়ে অতিবাহিত করতে পারবে। এতে আমার মনে হয় মহান আল্লাহ বেশী খুশি হবেন। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি বলেন, সামনে কোরবানি ঈদ উপলক্ষ্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র প্রতি পরিবারকে চার কেজি চাল, আধা কেজি মাংস, আধা লিটারসোয়বিন তেল, দুই কেজি আটা ও আলু, লবণ, মরিচের গুঁড়া, মসলাসহ একটি প্যাকেজ খাদ্য উপহার দেওয়ার সিন্ধান্ত নিয়েছেন। মানবতার সেবায় সকল প্রকার দান আয়কর মুক্ত।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button