লিড নিউজ

সুইস রাষ্ট্রদূত মিথ্যা বলেছেন-পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কূটনৈতিক রিপোর্টার : সুইস ব্যাংকে রাখা বাংলাদেশিদের টাকার বিষয়ে সরকার কোনো তথ্য চায়নি- সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের এমন বক্তব্য অসত্য বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন তিনি।পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রাষ্ট্রদূতের এমন দাবির বিষয়ে বাংলাদেশে ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। গর্ভনর মন্ত্রীকে জানিয়েছেন, সুইজারল্যান্ডের কাছে এ সংক্রান্ত তথ্য চাওয়া হয়েছে। বারবার প্রস্তাব পাঠানোর পরও সুইস সরকার এ বিষয়ে কোনো সাড়া দেয়নি।

তিনি বলেন, সুইজারল্যান্ড রাষ্ট্রদূত এই ধরনের মিথ্যা দাবি করে পার পেয়ে যাবে না।তিনি আরো বলেন, তিনি (সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত) মিথ্যা কথা বলেছেন। আমাকে আজ বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও অর্থ সচিব বলেছেন। তারা আগেও আমাকে বলেছেন, তারা চেয়েছেন (সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের টাকা সম্পর্কে তথ্য। তারা (সুইজারল্যান্ড) কোনো উত্তর দেননি। আজকে আমি জিজ্ঞাসা করেছি, বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরকে এবং সেই সঙ্গে নতুন অর্থ সচিবকে।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমান গভর্নর আগে অর্থসচিব ছিলেন। তারা বলেছেন, না, আমরা আগে চেয়েছি। তারা কোনো রেসপন্ড করে নাই (জবাব দেয়নি)। আমি বলেছি, আপনি এটি জানিয়ে দেন জনগণকে। কারণ এভাবে মিথ্যা কথা বলে পার পাওয়া ঠিক হচ্ছে না।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সুইস দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করবে কি না জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের গভর্নর আগে বিবৃতি দিক। আমরা সেগুলো জানি। কিংবা অর্থ মন্ত্রণালয় বিবৃতি দিক। এরপর আমরা বলব।

সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড গতকাল বুধবার কূটনৈতিক সংবাদদাতাদের সংগঠন ডিকাব আয়োজিত ডিকাব টক অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমা টাকার বিষয়ে তথ্য পেতে কিভাবে চুক্তি করা যায় সে বিষয়ে সব ধরনের তথ্য তারা বাংলাদেশ সরকারকে দিচ্ছে। তবে কোনো বিশেষ তহবিলের বিষয়ে এখন পর্যন্ত অনুরোধ তারা পাননি।সুইস রাষ্ট্রদূত বলেছিলেন, বাংলাদেশ সরকার কারো সম্পর্কে তথ্যই চায়নি।

 

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button