৮ বিভাগের খবর

২২ আগস্ট থেকে ৯ দিন-চট্টগ্রাম থেকে সরকার পতনের ডাক বিএনপির

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, মানুষ আজ তাদের অধিকার ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য রাস্তায় নেমেছে। ২২ আগস্ট থেকে ৯ দিন জনগণ রাস্তায় থাকবে। চট্টগ্রামবাসী চট্টগ্রাম থেকেই সরকার পতনের আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। জনতার স্রোত এখনো শুরু হয়নি। আজকের এই বিশাল সমাবেশ শুধু স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানের খেলা। বাকি খেলা সামনে।

শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বিকেলে চট্টগ্রামের কাজীর দেউরী মোড়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের বর্ণাঢ্য র‍্যালি পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, আগামীতে যে আন্দোলন হবে, সেটি হবে শেখ হাসিনার পতনের আন্দোলন। স্বেচ্ছাসেবক দল, তাঁতীদল, মহিলাদল, শ্রমিকদল, ছাত্রদল সব অঙ্গসংগঠন যদি চট্টগ্রামে নামে, চট্টগ্রাম জনস্রোতে পরিণত হবে। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে চট্টগ্রামে মহাসমাবেশ হবে। আওয়ামী লীগের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে। তারা আবোল তাবোল বলছে। এগুলো গদি হারানোর লক্ষণ। তাই সরকার পতন না হওয়া পর্যন্ত মাঠে থাকুন।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, দুঃশাসন জারি রেখেই বর্তমান অবৈধ সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। এ জন্যই তারা বিরোধী দলকে দমন পীড়নের মাধ্যমে নিশ্চিহ্ন করার নীলনকশা বাস্তবায়ন করছে। তাই হত্যা, নির্বিচার গ্রেপ্তার, মিথ্যা মামলা সাজানোর জন্য পরিকল্পিত ঘটনা তৈরি করাই এখন সরকারের একমাত্র কাজ। এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে সরকার প্রশাসন ও পুলিশকে নির্লজ্জভাবে ব্যবহার করছে। তারই ধারাবাহিকতায় ভোলায় স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আবদুর রহিম ও নুরে আলমকে হত্যা করা হয়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমলেও পেট্রোলিয়াম করপোরেশন দাম না কমিয়ে পাঁচ বছর ধরে লাভ করেছে। এতে তাদের লাভ ছিল প্রায় ৫০ হাজার কোটি টাকা। সেই মুনাফার টাকা তারা কী করেছে? এর হিসাব দিতে হবে।চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এইচ এম রাশেদ খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলুর পরিচালনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ইয়াছিন চৌধুরী লিটন প্রমুখ।

 

 

 

সংশ্লিষ্ট খবর

মন্তব্য করুন

Back to top button