লাইফ স্টাইল

কবরে ১০ ঘণ্টা কাটিয়ে পুলিশের কব্জায় ইউটিউবার

বগুড়া প্রতিনিধি : কবরে ১০ ঘণ্টা কাটিয়ে পুলিশের কব্জায় রয়েছে এক ইউটিউবার। জানা গেছে, জীবন্ত অবস্থায় কবরে ১০ ঘণ্টা কাটিয়েছেন বগুড়ার শাজাহানপুরের মিজানুর রহমান রনি (২২) নামে এক শিক্ষার্থী। অভিজ্ঞতা অর্জন করতে এবং তা ভিডিও করে ইউটিউব চ্যানেলে পোস্ট করার জন্য নিজ বাড়ির উঠানে কবর খুড়ে ভেতরে অবস্থান করেন তিনি। এমন ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্য ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে সোমবার সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে কবর থেকে রনিকে আটক করে শাজাহানপুর থানা পুলিশ। সেইসঙ্গে রনির ভাইকেও আটক করা হয়। রনি উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে। তিনি চাপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক থেকে এ বছর ডিপ্লোমা পাস করেছেন।

জানা যায়, মিজানুর রহমান রনি নিজ বাড়ির উঠানে কবর খুড়ে গত রবিবার রাত ১১টায় সবার অজান্তে খাবার, পানি, লাইট, ক্যামেরা নিয়ে কবরে ঢুকেন। কবরে যেন গরম না লাগে সেজন্য উপর থেকে প্লাস্টিকের মোটা পাইপের সাথে বৈদ্যুতিক ফ্যান লাগিয়ে নেন।সোমবার সকালে জানাজানি হলে স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। অনেকের সমালোচনা শুরু করেন। খবর পেয়ে পুলিশ এসে রনি ও তার বড়ভাই মিলনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।স্থানীয় সূত্র জানায়, রনি ও তার পরিবারের লোকজন ভালো মানুষ। রনি বছর খানেক আগে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত হেঁটে ভ্রমণ করেন। শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ‌রনি একজন ইউটিউবার। কবরের অভিজ্ঞতা অর্জন করতে ও তার ভিডিও করে ইউটিউবে পোস্ট করার জন্য তিনি এমন কাজ করেছেন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন। সন্দেহজনক কিছু পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button