জাতীয়

আইজিপির দায়িত্ব নিলেন মামুন

বিশেষ প্রতিনিধি : পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকালে তিনি পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে এসে পৌঁছালে একটি সুসজ্জিত পুলিশ দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করে এবং ফুলেল শুভেচ্ছা জানায়। আইজিপি হিসেবে যোগদানের আগে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন র‌্যাবের মহাপরিচালক ছিলেন। তিনি বিদায়ী আইজিপি বেনজীর আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। পুলিশ সদর দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।দায়িত্বভার গ্রহণের পর নতুন আইজিপি ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে যান। সেখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর আইজিপি রাজারবাগে পুলিশ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

গত ২২ সেপ্টেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে তাকে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে মনোনীত করা হয়। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপ-সচিব ধনঞ্জয় কুমার দাসের সই করা প্রজ্ঞাপনে তা জানানো হয়।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন ১৯৮৯ সালের ২০ ডিসেম্বর অষ্টম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন। কর্মজীবনে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন একজন চৌকস, পেশাদার ও দূরদৃষ্টিসম্পন্ন পুলিশ অফিসার হিসেবে সমাদৃত। তিনি অত্যন্ত সততা, দক্ষতা ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট, বিশেষ করে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, সিআইডি, ঢাকা ও ময়মনসিংহ রেঞ্জ এবং সর্বশেষ র‌্যাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি ডিএমপিতে সহকারী কমিশনার, এপিবিএনে সহকারী পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ ও চাঁদপুর জেলায় সার্কেল এসপি, চাঁদপুর জেলায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবং ডিএমপিতে অতিরিক্ত উপ-কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি নীলফামারী জেলার পুলিশ সুপার ছিলেন। পরে ডিএমপিতে উপ-কমিশনার, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে এআইজি (সংস্থাপন) ও এআইজি (গোপনীয়) এবং ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ছিলেন।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে ডিআইজি (অপারেশনস) ও ডিআইজি (প্রশাসন) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ময়মনসিংহ রেঞ্জের প্রথম ডিআইজি হিসেবে গৌরবের অধিকারী হন। এরপর দায়িত্ব পান ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হিসেবে। অতিরিক্ত আইজিপি হিসেবে পদোন্নতি লাভের পর তিনি পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে অতিরিক্ত আইজিপি (এইচআরএম) পদে দায়িত্ব পালন করেন।

বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট সিআইডির প্রধান (অতিরিক্ত আইজিপি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন।আবদুল্লাহ আল মামুন ২০২০ সালের ১৪ এপ্রিল র‌্যাবের মহাপরিচালকের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। তার সময়কালে দেশের উগ্র ও সহিংস জঙ্গি দমনে ব্যাপক ভূমিকা পালন করেন তিনি।

বাংলাদেশ পুলিশে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদকে (পিপিএম) ভূষিত হয়েছেন। কর্মজীবনে তিনি বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, লাইবেরিয়া ও দারফুরে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন ১৯৬৪ সালের ১২ জানুয়ারি সুনামগঞ্জ জেলার শাল্লা থানার শ্রীহাইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞানে স্নাতক সম্মান ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তার স্ত্রী সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে ঢাকার হলিফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজে কর্মরত আছেন। তাদের দুই ছেলে ও এক কন্যাসন্তান রয়েছে।

 

 

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button