খেলাজাতীয়

কোহলীর ফেইক ফিল্ডিং-ভারতের চোট্টামির বিচার কে করবে?

স্পোর্টস রিপোর্টার : বাংলাদেশের বিপক্ষের ম্যাচে বিরাট কোহলির ফেক ফিল্ডিং নিয়ে তোলপাড় চলছে। নাজমুল হোসেন শান্ত বিষয়টি আম্পায়ারদের অবহিত করলেও তারা দেখেননি বলে জানান। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার পর বাংলাদেশের টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট শ্রীধরন শ্রীরামও বিষয়টি আম্পায়ারদের জানান। এমনকি জানান সাকিব আল হাসানও। কিন্তু আম্পায়াররা সেটা আমলে নেন না। তারা জানান বিষয়টি তাদের চোখে পড়েনি। তো ভিডিও দেখলে তো ভারতের চোট্টামি ধরা পড়ত। কিন্তু সেদিকে যাননি আম্পায়ারা। কারণ তারা’তো ভারতের কেনা গোলাম।

ভিডিওতে দেখা যায় সত্যিই কোহলি ফেক ফিল্ডিং করেছিলেন। ওই ম্যাচে বাংলাদেশ ৫ রানে হেরে যাওয়ার পর বিষয়টি নিয়ে সমালোচনায় মেতে ওঠে সারা বিশ্ব। সেই সমালোচনায় যোগ দেন ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটারা। এমনকি ভারতেরও কেউ কেউ বিষয়টির সমালোচনা করেন। তারা জানান, আইসিসি ভারতকে বেশি সুবিধা দেয়। আর সেটা করতে গিয়ে পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করে বসে।

কোহলীর ফেক ফিল্ডিং বিতর্কে এবার যোগ দিলেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং বিশ্লেষক আকাশ চোপড়া।একজন ভারতীয় হয়েও তিনি বাংলাদেশের অভিযোগকে সঠিক বলে মনে করছেন। আকাশের মতে, ‘বাংলাদেশ সঠিক বিষয় নিয়েই অভিযোগ জানাচ্ছে। ওটা শতভাগ ফেইক ফিল্ডিং ছিল। কোহলি বল হাতে না নিয়েও থ্রো করার ভঙ্গি করেছিল। মাঠে থাকা দুই আম্পায়ার এবং তৃতীয় আম্পায়ার যদি ব্যাপারটা দেখত, তাহলে নিশ্চিতভাবেই বাংলাদেশ ৫ রান পেনাল্টি হিসেবে পেত। কিন্তু তেমন কিছু ঘটেনি। কারণ, আম্পায়ারের চোখ থেকে এত বড় ঘটনা এড়িয়ে গিয়েছে।

যদিও ভারতের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার হার্ষা ভোগলে টুইট করেছিলেন, আমার বাংলাদেশের বন্ধুদের বলব, লক্ষ্যে পৌঁছতে না পারার দায় ফেইক ফিল্ডিং বা ভেজা কন্ডিশনকে দেবেন না। ‘ কিন্তু আকাশ চোপড়া মনে করেন, ভারত এ যাত্রায় বেঁচে গেল। তিনি আরো বলেছেন, ‘বিষয়টি আম্পায়ারদের নজরে এলে তারা ৫ রান পেত। আর আমরাও ৫ রানে ম্যাচ জিতেছিলাম। ভারতীয় দল এই যাত্রায় বেঁচে গেলেও এর পর থেকে আম্পায়ারদের আরো সতর্ক হতে হবে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button